CePrA->Banking News Link
Banking News Link

05 April 2020

Top Stories

ব্যাংকারদের চলাচলে বাধা না দিতে গভর্নরের চিঠি


সমকাল, 05 Apr, 2020

সাধারণ ছুটির কারণে অধিকাংশ অফিস বন্ধ থাকলেও খোলা আছে ব্যাংকসহ কিছু জরুরি সেবা। অফিসে যাওয়া বা অফিস শেষে বাসায় ফেরার পথে আইন শৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনীর বাধার মুখে পড়ছেন অনেকে ...More

Banking

নতুন উদ্যোক্তা ঋণে আগ্রহ হারাচ্ছে ব্যাংক


অর্থসূচক, 05 Apr, 2020

সব ধরণের ঋণের সুদহার এক অঙ্কে নামিয়ে আনার আলোচনা চলছিল বেশ কয়েক বছর ধরেই। শেষমেষ গত ১ এপ্রিল থেকে তা বাস্তবায়ন হয়েছে। এই সিদ্ধান্তে ক্ষুদ্র উদ্যোক্তারা ক্ষতির মুখে পড়তে পারে এমন মন্তব্য করে আসাছিলেন সংশ্লিষ্টরা। এখন সে সন্দেহ বাস্তবে পরিণত হয়েছে। ২০১৯ সালে ১ লাখ ৩১ হাজার নতুন উদ্যোক্তার মাঝে ২৩ হাজা ...More

Bangladesh Bank sets 5pc LC margin limit for baby food import


New Age, 05 Apr, 2020

The Bangladesh Bank on Saturday instructed commercial banks to allow opening of letters of credit with a maximum of 5 per cent margin for baby food import to ensure sufficient supply of the... ...More

৩১ মে পর্যন্ত ক্রেডিট কার্ডে জরিমানা নয়


বণিক বার্তা, 05 Apr, 2020

আগামী ৩১ মে পর্যন্ত বিল পরিশোধে ব্যর্থ কোনো ক্রেডিট কার্ড গ্রাহকের কাছ থেকে অতিরিক্ত ফি বা জরিমানা আদায়ে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। ১৫ মার্চ-পরবর্তী সময়ে কোনো ব্যাংক যদি গ্রাহকদের কাছ থেকে জরিমানা আদায় করে থাকে, তা-ও গ্রাহককে ফেরত দিতে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। বাংলাদেশ ব্যাংকের ‘ব্যাংকিং প্রবিধি ও নীতি’ বিভাগ থেকে গতকাল জারি করা এক সার্কুলারে এ নিষেধাজ্ঞা দেয়া হয়। বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া নভেল করোনাভাইরাসের প্রভাবে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষকে সুরক্ষা দিতে কেন্দ্রীয় ব্যাংক এ নির্দেশনা দিয়েছে। ...More

পুলিশের বাধায় ক্ষোভ অস্বস্তি ও আতঙ্কে ব্যাংকাররা


বণিক বার্তা, 05 Apr, 2020

সাধারণ ছুটির মধ্যে ব্যাংকিং সেবা সচল রাখা নিয়ে বিড়ম্বনায় পড়েছেন ব্যাংকাররা। কর্মক্ষেত্রে যেতে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর বাধা ও গণপরিবহন বন্ধ থাকাকে দায়ী করছেন তারা। এ নিয়ে ব্যাংকারদের মধ্যে ক্ষোভ বাড়ছে। একই সঙ্গে নভেল করোনাভাইরাসে সংক্রমিত হওয়ার ঝুঁকি থেকে অস্বস্তি ও আতঙ্ক বাড়ছে ব্যাংকারদের। ...More

No fine on credit card bill default till May: BB


New Age, 05 Apr, 2020

The Bangladesh Bank has asked the banks not to impose any late fees, interests and penalties for the delay in credit card bill payment till May 31 amid the coronavirus outbreak in the country... ...More

Taming coronavirus rampage

Now BB takes pity on farmers

Preparing a bailout package of at least Tk 5,000cr for them

The Daily Star, 05 Apr, 2020

The central bank has taken an initiative to form a large bailout package for farmers, who have seen a complete collapse in demand for their produce for the countrywide movement control order enforced by the government with a view to flattening the curve on coronavirus. ...More

ব্যাংক–কর্মীদের যাতায়াত নির্বিঘ্ন করতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে অনুরোধ


প্রথম আলো, 05 Apr, 2020

কর্মরত ব্যাংক কর্মকর্তাদের নির্বিঘ্নে কর্মস্থলে যাতায়াতের উদ্যোগ নিতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে অনুরোধ জানিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবির। ...More

Economy

বিপর্যস্ত অর্থনীতিতে আশা সিঙ্গেল ডিজিট সুদ


বাংলাদেশ প্রতিদিন, 05 Apr, 2020

বিনিয়োগ ও ব্যবসা-বাণিজ্যের মন্দা পরিস্থিতির  ধাক্কা কাটিয়ে ওঠার আগেই করোনাভাইরাসের প্রভাবে থেমে গেছে দেশের অর্থনীতির চাকা। ব্যাংক ঋণের সিঙ্গেল ডিজিট সুদ হারের সিদ্ধান্ত বিপর্যস্ত এই অর্থনীতিতে নতুন করে গতির সঞ্চার করবে। ১ এপ্রিল থেকেই সরকারের এ সিদ্ধান্ত ইতিমধ্যে কার্যকর করেছে বেশির ভাগ ব্যাংক। বিশ্বব্যাপী ...More

Stock

পুঁজিবাজার বন্ধ আরো এক সপ্তাহ


নয়া দিগন্ত, 03 Apr, 2020

বিশ্বব্যাপী প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের কারণে সরকারী সিদ্ধান্তের সাথে সহমত পোষণ করে দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) লেনদেন কার্যক্রম স্থগিতের মেয়াদ আরো এক সপ্তাহ বৃদ্ধি... ...More

Article and Interview


The Financial Express, 02 Apr, 2020

Global supply chain is facing disruptions due to coronavirus pandemic. As a part of supply chain, Bangladesh's export sectors are in deadly trouble. The readymade garments (RMG) sector is the leading one, which is mostly affected.. The Prime Minister on March 25, 2020 announced a fiscal stimulus wor ...More

Trade and Industry

১২ ধরনের পণ্যে শুল্ক-কর থাকবে না


প্রথম আলো, 23 Mar, 2020

করোনাভাইরাস প্রতিরোধে হ্যান্ড স্যানিটাইজার তৈরি, মাস্ক, সুরক্ষা পোশাকসহ ১২ ধরনের পণ্য আমদানিতে সব ধরনের শুল্ক-কর অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। আজ রোববার জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) এ–সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করেছে। ...More

International

Canadian banks reduce credit card interest rates


The Daily Observer, 05 Apr, 2020

Some of Canada's largest banks are reducing interest rates on Canadians' personal credit cards due to financial problems caused by the COVID-19 epidemic.CIBC credit card clients who request to be paid off and face financial problems will receive a temporary lower annual interest rate of 10.99 percent, the bank announced ...More

Miscellaneous

বাংলাদেশ ব্যাংকের দুই কর্মকর্তার পদোন্নতি


অর্থসূচক, 23 Mar, 2020

বাংলাদেশ ব্যাংকের মহাব্যবস্থাপক থেকে নির্বাহী পরিচালক (ইডি) পদে রেজাউল ইসলাম এবং উপ-মহাব্যবস্থাপক থেকে মহাব্যবস্থাপক (জিএম) পদে ওয়াহিদা নাসরিনকে পদোন্নতি দেয়া হয়েছে। আজ রোববার (২২ মার্চ) কেন্দ্রীয় ব্যাংক থেকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। গত ১৯ মার্চ বাংলাদেশ ব্যাংকের অফিস নির্দেশনায় তা ...More

Disclaimer: Banking News Link, an initiative of Center for Professional Advancement, contains links to important banking and business news. However, providing a link does not necessarily imply an endorsement of the contents of the linked site.
Old news is available from 21-06-2016

News Headlines at a Glance

ব্যাংকারদের চলাচলে বাধা না দিতে গভর্নরের চিঠি
নতুন উদ্যোক্তা ঋণে আগ্রহ হারাচ্ছে ব্যাংক
ব্যাংক–কর্মীদের যাতায়াত নির্বিঘ্ন করতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে অনুরোধ
৩১ মে পর্যন্ত ক্রেডিট কার্ডে জরিমানা নয়
পুলিশের বাধায় ক্ষোভ অস্বস্তি ও আতঙ্কে ব্যাংকাররা
বিপর্যস্ত অর্থনীতিতে আশা সিঙ্গেল ডিজিট সুদ

Bangladesh Bank sets 5pc LC margin limit for baby food import
No fine on credit card bill default till May: BB
Canadian banks reduce credit card interest rates
Now BB takes pity on farmers

রফিক সাহেবের মুখটা তেতো হয়ে আছে। নিউজটা খুঁজে বের করা দরকার। তার আগে তিনি পিয়ন নাজমুলকে ডেকে চা দিতে বললেন। নাজমুল চোখে মুখে বিস্ময় নিয়ে চা আনতে বেরিয়ে গেলো।

এখন বেলা এগারটা। রফিক সাহেব এই সময়ে চা খান না। তিনি সকাল সাড়ে নয়টার মধ্যেই অফিসে ঢুকেন। ঢুকেই এক কাপ চা খান। আরেক কাপ চা খান দুপুরে খাবারের পর।

শুধু চা এর ব্যাপারেই না, অফিসের সব কাজেই তিনি একটা নিয়ম মেনে চলেন। তিনি খুব মেধাবী না, তবে নিয়মনিষ্ঠ। নিয়মানুবর্তিতার ফল তিনি হাতে হাতে পেয়েছেন।

একটা ঘটনা তাঁর মনে পড়ছে। তাঁর ব্যাংকিং ক্যারিয়ারের শুরুটা হয়েছিল হেড অফিসে। কাজ করতেন বড় স্যারদের সাথে। তাদের মধ্যে একজন একদিন উনাকে ডেকে পার্সোনাল সার্কুলার ফাইলটা দিয়ে বললেন, "রফিক সাহেব, এই সার্কুলারগুলো কপি করে নিজের জন্য একটা ফাইল বানিয়ে নিন।"

রফিক সাহেব সার্কুলার ফাইলটা কপি করে নিলেন। তারপর ফাইলটা ফেলে না রেখে সার্কুলারগুলো পড়ে ফেললেন। সেই থেকে নতুন কোন সার্কুলার এলেই তিনি নিজের সার্কুলার ফাইলটা আপডেট করে ফেলতেন। একটা কপি সেই স্যারকেও দিতেন। স্যার খুব খুশি হতেন।

এই ছোট্ট একটি অভ্যাস তাকে অনেক সুবিধা দিয়েছিল। অফিসের সবাই জানতেন রফিক সাহেবের কাছে আপডেটেড সার্কুলার আছে। সবাই ছোট বড় নানা বিষয়ের সার্কুলারের জন্য রফিক সাহেবের কাছে আসতেন। রফিক সাহেবের লাভটা হত যে- তিনি সবসময়ই বিষয়গুলোর চর্চার মধ্যে থাকতেন এবং আপডেটেড থাকতেন। বড় স্যাররা পর্যন্ত তাকে সমীহের চোখে দেখতেন। তিনি কিছু বললে ওটাই মোটামুটি ফাইনাল বলে ধরে নেয়া হত।

'স্যার পানি দেব?' চা রাখতে রাখতে নাজমুল জিজ্ঞাসা করল।
'না, ঠিক আছে' বলে রফিক সাহেব নিজেই পানি ঢেলে খেয়ে নিলেন।

দীর্ঘ পঁচিশ বছরের ব্যাংকিং ক্যারিয়ারে তিনি হেড অফিস থেকে ব্রাঞ্চে ঘুরে আবার হেড অফিসে আইডি (ইন্টারন্যাশনাল ডিভিশন)-এর হেড। কিন্তু ইদানীং চিত্রটা পাল্টে যাচ্ছে।

আজকের ব্যাপারটাই ধরা যাক। সকাল দশটায় ম্যানেজমেন্ট কমিটির মিটিং ছিল। এমডি সাহেব মিটিংয়ে আজকের একটা নিউজ দিয়ে আলোচনা শুরু করলেন। একটা নামকরা পত্রিকা তাদের ব্যাংক নিয়ে একটি নেগেটিভ রিপোর্ট করেছে। কিছু তথ্য-উপাত্তও তারা দিয়েছে।

রফিক সাহেব নিউজটা পড়েননি। একটি ভালো মানের ইংরেজি পত্রিকা উনি প্রতিদিন পড়েন। কিন্তু আলোচিত নিউজটি অন্য পত্রিকার।

এমডি সাহেব আলোচনার মাঝে বারবার উৎসুক চোখে রফিক সাহেবের দিকে তাকাতে লাগলেন কিছু শোনার অপেক্ষায়। শেষে বলেই ফেললেন, 'কি রফিক সাহেব, আপনি কী বলেন?'

রফিক সাহেব কী বলবেন ভাবছেন। এমডি সাহেব হেঁজিপেঁজি লোক না। আন্দাজে কিছু বললে তিনি ঠিকই ধরে ফেলবেন। এত ব্যস্ততার মাঝেও তিনি প্রচুর পড়াশোনা করেন। বাংলাদেশ ব্যাংক যখন প্রথম Basel-II এর গাইডলাইনটা দিয়েছিল, তখন উনি ডিএমডি। দিনের একটা সময়ে বোর্ডরুমের দরজা বন্ধ করে গাইডলাইনটা পড়তেন। ব্যাংকে উনিই সম্ভবত সবার আগে গাইডলাইনটা পড়ে শেষ করেছিলেন।

'স্যার, নিউজটা আমার পড়া হয়নি' রফিক সাহেব উত্তর দিলেন।

ব্যাপারটা এখানেই স্বাভাবিকভাবে শেষ হওয়ার কথা ছিল, কিন্তু হলো না। পাশ থেকে রইস সাহেব বললেন, 'স্যার, আমাদের বয়স হয়ে যাচ্ছে তো, এখন আর আগের মত আপডেটেড থাকতে পারি না'।

কথাগুলো যতটুকু নির্দোষ সমবেদনা বলে মনে হচ্ছে, আসলে তা না। রইস সাহেব কখনই আপডেটেড থাকেন না। এর জন্য মাঝে মাঝে এমডি সাহেবের কাছে ধমকও খান। তাতে অবশ্য কোন কাজ হয় বলে মনে হয় না। আজ যখন দেখা গেলো রফিক সাহেব নিউজটা পড়েননি, তখন রইস সাহেব টেনে রফিক সাহেবকে নিজের কাতারে নামিয়ে আনতে চাইলেন।

রফিক সাহেব বিনয়ী মানুষ। নিজেকে রইস সাহেবের চেয়ে শ্রেষ্ঠ তিনি কখনই ভাবতে চান না। কিন্তু তাঁর আপত্তি অন্য জায়গায়। বয়স হয়ে যাচ্ছে এই অজুহাতে তিনি অন্য কারো করুণার পাত্র হতে চান না। এমডি সাহেব এই বয়সে পারলে তিনি কেন পারবেন না?

আপডেটেড থাকার জন্য আরও কয়েকটা পত্রিকা তিনি পড়তে পারেন ঠিকই; কিন্তু শুধু নিউজ পড়ে এত সময় তিনি ব্যয় করতে চান না। এতে তাঁর অন্যান্য কাজকর্মে ব্যাঘাত ঘটবে। তা ছাড়া কয়টা পত্রিকা তিনি পড়বেন? ভালো পত্রিকার সংখ্যাও তো কম না।

'আসসালামু আলাইকুম। স্যার আসব?' উনার চিন্তায় ছেদ পড়ল। হাসি হাসি মুখে হাসান দরজায় উঁকি দিল।
'ওয়াআলাইকুমুসসালাম। জি আসেন।'

হাসানকে দেখলেই রফিক সাহেবের মনটা ভালো হয়ে যায়। সারাক্ষণ এত হাসি হাসি মুখ করে ছেলেটা থাকে কিভাবে? মুখের তেতো ভাবটা অনেকটাই কেটে গেলো হাসানের হাসি দেখে।

হাতের ফাইলটা এগিয়ে দিতে দিতে হাসান বলল, 'স্যার নিউজটা পড়েছেন?'
'আপনারা এত নিউজ রাখেন কিভাবে?' রফিক সাহেবের অবাক জিজ্ঞাসা।
'কি যে বলেন স্যার। আপনিই তো সব সময় আমাদের আপডেটেড থাকতে বলেন।' লাজুক হেসে বলল হাসান।
'তা ঠিক আছে। আপনি কি পত্রিকাটি নিয়মিত পড়েন?'
'জি না স্যার। আমি অন্য পত্রিকা পড়ি; কিন্তু সাথে প্রতিদিনই ব্যাংকিং নিউজ লিংক পড়ি। ওখানেই নিউজটা পেয়েছিলাম।'
'ব্যাংকিং নিউজ লিংক কী?'
'ও আচ্ছা স্যার, আপনাকে আগে বলা হয়নি। ব্যাংকিং নিউজ লিংক একটা ওয়েবপেইজ। এখানে প্রতিদিনের ব্যাংকিং নিউজের লিংক থাকে। একনজরেই সব নিউজ পাওয়া যায়।'
'তাই নাকি!' খুশি হলেন রফিক সাহেব।

হাসানের নিকট থেকে এড্রেস নিয়ে তিনি ওয়েবপেইজটিতে ঢুকলেন। সমস্যার এত সহজ সমাধান পেয়ে তিনি মুগ্ধ। মুখের তেতো ভাব পুরোটাই কেটে গেলো রফিক সাহেবের।

[ঘটনাটি কাল্পনিক।]



Leave your Comments

Comment Policy